স্বাস্থ্য

১৭ টি ধূমপান ছাড়ার উপায় / How To Quit Smoking Easily



আপনি যখন ধূমপান ছাড়ার জন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুত তখন যুদ্ধের অর্ধেক মাত্র শুরু। ধূমপান শুরু করা খুব সোজা, কখনো বন্ধুদের সাথে বা মেয়েদের সামনে স্মার্ট হওয়ার জন্য অথবা কখনো বা টেনশন থেকে মুক্ত হবার জন্য আপনি ধূমপান শুরু করেছিলেন। প্রথমদিকে খুব একটা যে ভালো লাগতো তাও না, তবুও ভাবটার জন্য খাওয়া হতো মাঝে মাঝে।

এটি হেরোইন বা ইয়াবা থেকেও মারাত্মক আসক্তি। ওই জাতীয় নেশার জন্য আপনাকে অনেক গুলো শক্ত শক্ত ধাপ পার হতে হয়, ওই ড্রাগগুলা আপনাকে খুজতে হবে, ভালো একটা নিরাপদ ঘর লাগবে তারপর বেশ আয়োজন করে আপনাকে শুরু করতে হবে। কিন্তু সিগারেট খুব কম দামে, সব জায়গায় পাবেন এমন কি প্রায় সব জায়গায় খেতেও পারবেন। বহু রাসায়নিক এবং নিকোটিনে আসক্ত হয়ে পড়েন আপনি। নিকোটিন উত্তেজক এবং হতাশাগ্রস্থ। এর অর্থ এটি প্রথমে হার্টের স্পন্দন বাড়ায় এবং লোকেরা আরও সজাগ বোধ করে। তারপরে এটি হতাশা এবং ক্লান্তি সৃষ্টি করে। হতাশা এবং অবসন্নতা অন্যদিকে নিকোটিন ছেড়ে দিলে মানুষ আবার নতুন ভাবে বুঝতে শুরু করে। মৃত্যুর শীর্ষে ধূমপানের তিনটি কারণ হ’ল কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজফুসফুস ক্যান্সার এবং দীর্ঘস্থায়ী বাধা পালমনারি ডিজিজ (সিওপিডি)। এই “শীর্ষ তিনটি” ছাড়াও ধূমপান অন্যান্য বেশ কয়েকটি ক্যান্সারের সাথেও যুক্ত, বেশি সর্দি ও সংক্রমণ, ডায়াবেটিস, অস্টিওপোরোসিস এবং হিপ ফাটল হওয়ার সম্ভাবনা, গর্ভাবস্থায় সমস্যা, পুরুষের যৌন সমস্যা, পেটের আলসার, মাড়ির রোগ এছাড়াও তালিকাতে আরও অনেক কিছুই আছে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন তামাকের নিকোটিন কোকেন বা হেরোইনের থেকেও বেশি আসক্তিযুক্ত। আর যদি এই নেশা আপনি ছাড়তে চান তখন টের পাবেন এটা ছাড়া কত কষ্ট। তাই মানসিক ভাবে নিজেকে তৈরি করুন কঠিন একটা সময় পার করতে। বিশেষজ্ঞরা এটিকে “আসক্তিযুক্ত চার মাথাযুক্ত ড্রাগন” বলে সম্বোধন করে:



১. নিকোটিন আপনার শারীরিক আসক্তি সৃষ্টি করবে
২. সিগারেটগুলি আপনার রুটিনের অংশ হয়ে যাবে
৩. ধূমপানের উপর আপনার মনস্তাত্ত্বিক নির্ভরতা দিন দিন বৃদ্ধি পাবে
৪. ধূমপানের ফলে আপনি আপনার পরিবেশ থেকে অনবরত নিকোটিন এর চাপ অনুভব করবেন

Quit Smoking Easily

তবে হতাশ হবেন না; লক্ষ লক্ষ মানুষ স্থায়ীভাবে ধূমপান ছেড়ে দিয়েছে। যাই হোক আমরা আপনাকে খুব সহজ ও কঠিন কিছু উপায় বলে দেব যার মাধ্যমে আপনি পারবেন, বার বার চেষ্টা করুন আপনি অবশ্যই পারবেন। তবে প্রথম কথা সব
সময় এবং সব সময় মনে রাখতে হবে “ধুর সিগারেট আমার জীবনের কোনো বিষয়ই না”
পুরোপুরি ধূমপান বন্ধ করার আগে অনেকে সিগারেটের পরিমাণ কমিয়ে দেয় এতে পরবর্তীতে হটাৎ করে ধূমপান বন্ধ করা সোজা হয় বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।



আপনার সমস্ত সিগারেট ফেলে দিন। অ্যাশট্রে, লাইটার এমনকি যে প্যাকটি আপনি জরুরি অবস্থার জন্য দূরে সরিয়ে রেখেছিলেন সেগুলি সহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button