প্রশিক্ষণ

Samsung free IT training

স্যামসাং বাংলাদেশের জুনিয়র সফটওয়্যার একাডেমিতে সফল ভাবে শেষ হয়েছে তৃতীয় ব্যাচের Samsung IT training.  স্যামসাংয়ের রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট (R&D) ইনস্টিটিউট সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর মোট ৩০ জন সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করল ।



এই প্রোগ্রামে শিক্ষার্থী নির্বাচনে সহায়তা করছে, এডুকো এবং এস ও এস নামের দুটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। স্যামসাংয়ের এই মহতী উদ্যোগকে সুধীজনরা সাধুবাদ জানিয়েছেন। বর্তমান যুগে একটি জাতিকে এগিয়ে নিতে গেলে টেকনোলজি সম্পর্কে গভীর জ্ঞান সেই জাতির মানুষের ভেতর থাকতে হবে, আর সেই লক্ষ্যে স্যামসাং সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে শিশুদেরকে কোডিং, প্রোগ্রামিং, মাইক্রোসফট অফিস, কম্পিউটার ইন্টারনেট, অ্যানড্রয়েড ওপেনসোর্স সিস্টেম সংক্রান্ত প্রাথমিক শিক্ষা সহ অন্যান্য আরো অনেক প্রযুক্তিগত বিষয় প্রশিক্ষণ দান করছে। সফটওয়্যার ডেভলপমেন্ট এবং বেসিক কোডিং সম্পর্কে শিক্ষার্থীরা প্রাথমিক একটা ধারণা পাচ্ছে এবং ভবিষ্যতে তারা তাদের শিক্ষা কার্যক্রম কোন দিকে পরিচালিত করবে তা তারা নিজেরাই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবে সহজেই।  স্যামসাং বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্যাংওয়ান ইয়ুন বলেন,

”প্রযুক্তির অগ্রযাত্রায় স্যামসাং প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করে, আর তা বিবেচনা করেই বাংলাদেশ জুনিয়র সফটওয়্যার একাডেমীর প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের আয়োজন করে আসছে স্যামসাং বাংলাদেশ। এখান থেকে অর্জন করা জ্ঞান ভবিষ্যৎ শিক্ষা গ্রহণে শিক্ষার্থীদের সহায়তার পাশাপাশি তাদের মাঝে প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনী ধারণা নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা শক্তি তৈরি করবে। আমরা বিশ্বাস করি, আজকের শিশুরাই ভবিষ্যতে দেশের সার্বিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।”



স্যামসাংয়ের এই উদ্যোগ বর্তমান সময়ের একটি সময়োপযোগী ও দেশের উন্নয়ন কার্যক্রমের একটি অংশ। সুধীমহল আশা করে যে, বর্তমানে বাংলাদেশে যে সকল প্রথম সারির প্রতিষ্ঠান রয়েছে তারাও দেশের উন্নয়ন কার্যক্রমে এবং ভবিষ্যৎ দেশ পরিচালনাকারীদের কে সঠিকভাবে পরিচালিত করার জন্য বিনামূল্যে বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button